আয় করুন
$50000
বন্ধুদের আমন্ত্রণ করার জন্য
ইন্সটাফরেক্স থেকে স্টার্টআপ
বোনাস নিন
কোন বিনিয়োগের প্রয়োজন নেই!
কোনো বিনিয়োগ এবং ঝুঁকি
ছাড়াই ট্রেডিং শুরু করতে
গ্রহণ করুন নতুন স্টার্টআপ
বোনাস $1000
বোনাস নিন
৫৫%
ইন্সটাফরেক্স থেকে
প্রতিবার অর্থ জমাদানে
+ প্রসঙ্গে প্রত্যুত্তর
ফলাফল দেখাচ্ছে 1 হইতে 2 সর্বমোট 2

প্রসংগ: ধনীরা সাধারনত যে পাঁচটি ভুল করেন না!

  1. #1
    প্রবীণ সদস্য SaifulRahman's Avatar
    নিবন্ধনের তারিখ
    Nov 2017
    মন্তব্য
    205
    সঞ্চিত বোনাস
    33.72 USD
    ধন্যবাদ
    48
    29 টি পোস্টের জন্য 29 বার ধন্যবাদ পেয়েছেন

    ধনীরা সাধারনত যে পাঁচটি ভুল করেন না!

    ধনীরা পাঁচটি ভুল করেন না!
    58689443_2256614114433099_2197033538937683968_n.jpg
    মানুষমাত্রই ভুল করে। ধনী-গরিবনির্বিশেষে সবাই তা করে। মানুষ ভুল করে বলেই সে মানুষ। কিন্তু ধনী মানুষেরা কিছু কিছু ভুল এড়ানোর সর্বাত্মক চেষ্টা করেন। অন্য কথায়, ধনী হতে গেলে কিছু ভুল এড়াতে হয়। সিএনবিসির এক প্রতিবেদনে বিষয়টি উল্লেখ করা হয়েছে।
    প্রথমত, পুঁজিবাজারে যদি আপনার বিনিয়োগ থাকে এবং বাজার পড়তে শুরু করে, তাহলে সব জেনেবুঝে আপনাকে সিদ্ধান্ত নিতে হবে। তা না হলে হাত পুড়ে যাওয়ার আশঙ্কা থাকে। দিনের নির্দিষ্ট কিছু সময় যদি বাজারের গতিবিধি পর্যবেক্ষণ করতে না পারেন, তাহলে ভালো একজন আর্থিক উপদেষ্টা রাখাই যেতে পারে।
    ওয়াশিংটন ডিসির ডেলান্সি ওয়েলথ ম্যানেজমেন্টের প্রতিষ্ঠাতা আইভরি জনসন বলেন, অধিকাংশ ধনী মানুষই সম্পদ ব্যবস্থাপনা নিজেরা করেন না। তাঁরা সম্পদের সুরক্ষায় এবং ঝুঁকি কমাতে আর্থিক পরিকল্পনাকারী, আইনজীবী, পরামর্শক—এঁদের নিয়োগ দিয়ে থাকেন।
    আইভরি জনসন আরও বলেন, ‘বিনিয়োগকারীরা চাপে থাকলে ভুল সিদ্ধান্ত নেওয়ার প্রবণতা বাড়ে। সে জন্য ধনী মানুষেরা তা এড়াতে ভালো উপদেষ্টা নিয়োগ দিয়ে থাকেন।’ অনেকে হয়তো এই পরামর্শ ফি দিতে গাঁইগুঁই করবেন, কিন্তু অধিকাংশ সময়েই তার চেয়ে কয়েক গুণ বেশি টাকা ফেরত পাওয়া যায়।
    দ্বিতীয়ত, ধনীরা সাধারণত এক জায়গায় বিনিয়োগ করেন না। অতি ধনীরা বন্ডের বাইরে রিয়েল এস্টেট, লিমিটেড কোম্পানিসহ নানা জায়গায় বিনিয়োগ করে থাকেন। মানে পুঁজিবাজারে মন্দা থাকলে তা যেন আবাসন খাতের মুনাফা দিয়ে কাটিয়ে নেওয়া যায়, সে জন্যই এ ব্যবস্থা। বিশেষ করে আবাসন খাত অতি মুনাফাজনক হওয়ায় অতি ধনীদের এদিকে বিশেষ নজর আছে।
    তৃতীয়ত, অতি ধনীরা সময়ের হাওয়ায় ভেসে যান না। বিটকয়েনের কথাই ধরা যাক। ২০১৭ সালে বাজারে আসায় অনেকেই এ থেকে অনেক টাকা কামিয়েছেন। কিন্তু গত বছর বিটকয়েনের বাজার ৭০ শতাংশ পড়ে গেছে। এ ব্যাপারে মার্কিন বিনিয়োগ গুরু ওয়ারেন বাফেটের কথা স্মরণ করা যায়।
    গত বছর সিএনবিসিকে তিনি বলেছিলেন, ‘ক্রিপ্টোকারেন্স র ক্ষেত্রে আমি বলতে পারি, এর পরিণতি নিশ্চিতভাবেই খারাপ হবে।’ বাফেটের দৃঢ়প্রত্যয়: আপনি যা মনে করেন জানেন, তা সত্যি আপনাকে জানতে হবে এবং সেই পথে থাকতে হবে।
    চতুর্থত, ধনী বিনিয়োগকারীরা ক্ষণিকের মুনাফার কথা না ভেবে ধৈর্য ধরে দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনা করে থাকেন। তাঁরা শুধু নিজেদের জন্যই সম্পদ করার কথা ভাবেন না। নাতি-নাতনি বা তারও পরবর্তী প্রজন্মের জন্যও তাঁরা ভাবেন। তাঁরা কাঁড়ি কাঁড়ি টাকা দিয়ে ক্লাবের সদস্যও হন এ কারণে। এতে যে সম্পর্ক তৈরি হয়, তার কাছে এই টাকা কিছুই নয়।
    পঞ্চমত, শেয়ারবাজারে উথাল-পাতাল শুরু হলে মধ্যবিত্তরা হয়তো এদিক-সেদিক ছোটাছুটি করেন। কিন্তু ধনীরা আতঙ্কিত হন না। নানা জায়গায় বিনিয়োগ থাকায় তাঁরা এই অভয় পান। তবে এর জন্য প্রচুর টাকা থাকতে হয়।
    (কপি পোষ্ট)

  2. Device
  3. #2
    প্রবীণ সদস্য babubd's Avatar
    নিবন্ধনের তারিখ
    Apr 2019
    মন্তব্য
    328
    সঞ্চিত বোনাস
    150.85 USD
    ধন্যবাদ
    0
    30 টি পোস্টের জন্য 37 বার ধন্যবাদ পেয়েছেন
    আসলে কেহ মায়ের গর্ভ থেকে ধনী হয়ে আসেনি । তবে,হয়তো বাবার পৈতিক সুত্রে হতে পারে । বিশ্বের যত বড় বড় ধনী আছে তাদের ইতিহাসে বিশ্লেষন করলে দেখা তাদের জীবন পরির্তনের পিছনে রয়েছে কঠোর পরিশ্রম আর কাজে একাগ্রতা । হতাশা বিহিন জীবন তারা পরিচালনা করেছেন । তাই তাদের জীবনী থেকে আমরা শিক্ষা নিতে পারি।

+ প্রসঙ্গে প্রত্যুত্তর

মন্তব্য নিয়মাবলি

  • আপনি হয়ত নতুন পোস্ট করতে পারবেন না
  • আপনি হয়ত মন্তব্য লিখতে পারবেন না
  • আপনি হয়ত সংযুক্তি সংযুক্ত করতে পারবেন না
  • আপনি হয়ত আপনার মন্তব্য পরিবর্তনপারবেন না
  • BB কোড হলো উপর
  • Smilies are উপর
  • [IMG] কোড হয় উপর
  • এইচটিএমএল কোড হল বন্ধ
বাংলাদেশ ফরেক্স ফোরাম উপস্থাপন
ফোরাম সেবায় আপনাকে স্বাগতম যেটি ভার্চুয়াল স্যালুন হিসেবে সকল স্তরের ট্রেডারদের সাথে যোগাযোগ করার সুযোগ প্রদান করছে। ফরেক্স হলো একটি গতিশীল আর্থিক বাজার যেটি দিনে ২৪ঘন্টা খোলা থাকে। যে কেউ ব্রোকারেজ কোম্পানির মাধ্যমে এখানে কার্যক্রম সম্পাদন করতে পারে। এই ফোরামে আপনি কারেন্সি মার্কেটে ট্রেডিং এবং মেটাট্রেডার ফোর ও মেটাট্রেডার ফাইভের মাধ্যমে অনলাইন ট্রেডিং সম্পর্কিত বিস্তারিত বিবরণ পাবেন।

বাংলাদেশ ফরেক্স ফোরাম ট্রেডিং আলোচনা
ফোরামের প্রত্যেক সদস্য বিভিন্ন আলোচনায় অংশগ্রহণ করতে পারেন, যার মধ্যে ফরেক্স সম্পর্কিত ও ফরেক্সের বাইরের বিভিন্ন বিষয়ও রয়েছে। ফোরাম বিভিন্ন মতামত এবং প্রয়োজনীয় তথ্য শেয়ারের জন্য ডিজাইন করা হয়েছে এবং এটি অভিজ্ঞ ও নতুন উভয় ধরণের ট্রেডারদের জন্য উন্মুক্ত। পারস্পরিক সহায়তা এবং সহনশীলতা অত্যন্ত প্রশংসনীয়। আপনি যদি অন্যদের সাথে আপনার অভিজ্ঞতা শেয়ার করতে চান অথবা ট্রেডিং সম্পর্কে আপনার জ্ঞান বৃদ্ধি করতে চান, তাহলে ট্রেডিং সম্পর্কিত আলোচনা "ফোরাম থ্রেড" এ আপনাকে স্বাগত।

বাংলাদেশ ফরেক্স ফোরাম ব্রোকার এবং ট্রেডারদের মধ্যে আলোচনা (ব্রোকার সম্পর্কে)
ফরেক্সে সফল হতে চাইলে, যথেষ্ট কৌশলের সাথে একটি ব্রোকারেজ কোম্পানি বাছাই করতে হবে। আপনার ব্রোকার সত্যিই নির্ভরযোগ্য সেটি নির্ধারণ করুন! এভাবে আপনি অনেক ঝুঁকির সম্মুখীন হবেন এবং ফরেক্সে লাভজনক ট্রেড করতে পারবেন। ফোরামে একজন ব্রোকারের রেটিং উপস্থাপন করা হয়; এটি তাদের গ্রাহকদের রেখে যাওয়া মন্তব্য নিয়ে তৈরি করা হয়। আপনি যে ব্রোকার কোম্পানির সাথে কাজ করছেন সে কোম্পানি সম্পর্কে আপনার মতামত দিন, এটি অন্যান্য ট্রেডারদের ভুল সংশোধন করতে সাহায্য করবে এবং একজন ভালো ব্রোকার বাছাই করতে সাহায্য করবে।

অবিচ্ছিন্ন যোগাযোগ বাংলাদেশ ফরেক্স ফোরাম
এই ফোরামে আপনি শুধু ট্রেডিং এর বিষয় সম্পর্কেই কথা বলবেন না, সেইসাথে আপনার পছন্দের যে কোন বিষয় সম্পর্কে কথা বলতে পারবেন। বিশেষ থ্রেডে অফটপিং ও করা যায়! আপনার পছন্দের যে কোন হাস্যরস, দর্শন, সামাজিক সমস্যা বা বাস্তব জ্ঞান সম্পর্কিত কথাবার্তা এখানে উল্লেখ করতে পারবেন, এমনকি আপনি যদি পছন্দ করেন তাহলে ফরেক্স ট্রেডিং সম্পর্কেও লিখতে পারবেন!

যোগদান করার জন্য বোনাস বাংলাদেশ ফরেক্স ফোরামে
যারা ফোরামে লেখা পোষ্ট করবে তারা বোনাস হিসেবে অর্থ পাবে এবং সেই বোনাস একটি অ্যাকাউন্টে ট্রেডিং এর সময় ব্যবহার করতে পারবে. ফোরাম অর্থ মুনাফা লাভ করা নয়, অধিকন্তু, ফোরামে সময় ব্যয় করার জন্য এবং কারেন্সি মার্কেট ও ট্রেডিং সম্পর্কে মতামত শেয়ারের জন্য পুরষ্কার হিসেবে ফোরামিটিস অল্প কিছু বোনাস পায়।