+ প্রসঙ্গে প্রত্যুত্তর
ফলাফল দেখাচ্ছে 1 হইতে 1 সর্বমোট 1

প্রসংগ: এপ্রিল ২০২১ থেকে নতুন নিয়মে যেভাবে বরাদ্দ দেয়া হবে আইপিও শেয়ার

  1. #1 সঙ্কুচিত পোস্ট
    প্রবীণ সদস্য Rakib Hashan's Avatar
    নিবন্ধনের তারিখ
    Jan 2018
    মন্তব্য
    419
    অর্জিত পেমেন্টস
    636.42 USD
    ধন্যবাদ
    811
    219 টি পোস্টের জন্য 1,535 বার ধন্যবাদ পেয়েছেন
    সাবস্ক্রাইব করুনসাবস্ক্রাইব করুন
    সাবস্ক্রাইব করা: 0

    এপ্রিল ২০২১ থেকে নতুন নিয়মে যেভাবে বরাদ্দ দেয়া হবে আইপিও শেয়ার

    পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্তির প্রক্রিয়ায় থাকা নতুন কোম্পানিগুলোর শেয়ার পেতে বিনিয়োগকারীদের প্রাথমিক গণপ্রস্তাবে (আইপিও) আবেদন করতে হতো। দীর্ঘ দিন ধরে চলা এ প্রথা গত বছরের ৩১ ডিসেম্বর বৃহস্পতিবার বাতিল করেছে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)। এই পদ্ধতি ১লা এপ্রিল, ২০২১ থেকে আর থাকছেনা। এতেকরে প্রত্যেক আবেদনকারী শেয়ার পাবেন। এ বিষয়ে সবাই আবগত রয়েছেন।
    নতুন নিয়ম অনুযায়ি আইপিও আবেদন করার জন্য একজন বিনিয়োগ কারিকে তার বিও অ্যাকাউন্ট নাম্বারে ন্যূনতম ২০ হাজার টাকা সেকন্ডারি মার্কেটে বিনিয়োগ থাকতে হবে। আইপিও লটারির পরিবর্তে আনুপাতিক হারে শেয়ার বরাদ্দ দেয়া হবে। সেখেত্রে একজন বিনিয়োগকারিকে ন্যূনতম ১০ হাজার টাকা বা তার গুনিতক ২০ হাজার, ৩০ হাজার, ৪০ হাজার টাকা করে চাঁদা জমা দিতে হবে। কিন্তু বিষয়টি একদমি সেরকম নয়, কোন কম্পানি আইপিওতে শেয়ার বরাদ্দ দেয়ার জন্য প্রথমে ১০ হাজার টাকার চাঁদাকে বিবেচনা করা হবে। অর্থাৎ ১০ হাজার টাকা করে বিবেচনায় নেয়ে শেয়ার বরাদ্দ করা হবে এর পরে যদি অতিরিক্ত থাকে তাহলে সেটা বেশি টাকা বিনিয়োগকারীদের মধ্যে আনুপাতিক হারে বণ্টন করা হবে।

    নতুন নিয়মের বিষয়টি উদাহরণের মাধ্যমে নিচে দেওয়া হলো- ধরি, ABC কম্পানি ১ কোটি টাকার শেয়ার ইস্যু করবে এখন আইপিওতে ১ হাজার আবেদন কারি ২ কোটি টাকার আবেদন করল, এখানে শুরুতে বিবেচনায় নেয়া হবে প্রত্যেকের ১০ হাজার করে চাঁদার পরিমাণ । এক্ষেত্রে ওই ১ হাজার জনের ১০ হাজার করে মোট চাঁদার পরিমাণ হয় ১ কোটি টাকা। অর্থাৎ এতে ১০ হাজার টাকার উপরে যারা আবেদন করেছেন তারা ওই অতিরিক্ত টাকার আবেদনের জন্য কোন শেয়ার পাবেনা।
    আবার যদি ১ হাজার আবেদনকারীর কম আবেদন হত তবে অবিক্রিত থাকা শেয়ারগুলি যারা ১০ হাজারের বেশি চাঁদা জমা দিয়েছিলেন তাদেরকে আনুপাতিক হারে বরাদ্দ দেয়া হবে।

    ​স্মাপ্রতিক আইপিও আবেদনের সংখ্যা বিবেচনা করলে দেখা যায় প্রতিটি আইপিওতে কয়েকগুণ বেশি আবেদন জমা পরে। সে হিসেবে নতুন নিয়মে ১০ হজার টাকার বেশি আবেদন করে হয়ত কোন লাভ হবেনা।

    অর্থ বাজারে ট্রেড করার ক্ষেত্রে উচ্চ ঝুঁকি থাকলেও সঠিক উপায়ে ট্রেড করতে পারলে এখানে অতিরিক্ত উপার্জন করা সম্ভব। ইন্সটাফরেক্স এর মতো নির্ভরযোগ্য ব্রোকার বেছে নেওয়ার মাধ্যমে আপনি আন্তর্জাতিক অর্থ বাজারে প্রবেশ করতে পারবেন এবং আর্থিক স্বাধীনতার দিকে আপনার পথ উন্মুক্ত হবে। আপনি এখানে নিবন্ধন করতে পারেন।


  2. আপনার ধন্যবাদ সরিয়ে ফেলুন

    নিম্নলিখিত 5 সদস্য দরকারী পোস্টের জন্য Rakib Hashan কে ধন্যবাদ জানিয়েছেন:

    BDFOREX TRADER (2021-03-18),DhakaFX (2021-03-18),FXBD (2021-03-18),Montu Zaman (2021-03-18),Unregistered (1 )

+ প্রসঙ্গে প্রত্যুত্তর

মন্তব্য নিয়মাবলি

  • আপনি হয়ত নতুন পোস্ট করতে পারবেন না
  • আপনি হয়ত মন্তব্য লিখতে পারবেন না
  • আপনি হয়ত সংযুক্তি সংযুক্ত করতে পারবেন না
  • আপনি হয়ত আপনার মন্তব্য পরিবর্তনপারবেন না
  • BB কোড হলো উপর
  • Smilies are উপর
  • [IMG] কোড হয় উপর
  • এইচটিএমএল কোড হল বন্ধ
বাংলাদেশ ফরেক্স ফোরাম – উপস্থাপন
ফোরাম সেবায় আপনাকে স্বাগতম যেটি ভার্চুয়াল স্যালুন হিসেবে সকল স্তরের ট্রেডারদের সাথে যোগাযোগ করার সুযোগ প্রদান করছে। ফরেক্স হলো একটি গতিশীল আর্থিক বাজার যেটি দিনে ২৪ঘন্টা খোলা থাকে। যে কেউ ব্রোকারেজ কোম্পানির মাধ্যমে এখানে কার্যক্রম সম্পাদন করতে পারে। এই ফোরামে আপনি কারেন্সি মার্কেটে ট্রেডিং এবং মেটাট্রেডার ফোর ও মেটাট্রেডার ফাইভের মাধ্যমে অনলাইন ট্রেডিং সম্পর্কিত বিস্তারিত বিবরণ পাবেন।

বাংলাদেশ ফরেক্স ফোরাম – ট্রেডিং আলোচনা
ফোরামের প্রত্যেক সদস্য বিভিন্ন আলোচনায় অংশগ্রহণ করতে পারেন, যার মধ্যে ফরেক্স সম্পর্কিত ও ফরেক্সের বাইরের বিভিন্ন বিষয়ও রয়েছে। ফোরাম বিভিন্ন মতামত এবং প্রয়োজনীয় তথ্য শেয়ারের জন্য ডিজাইন করা হয়েছে এবং এটি অভিজ্ঞ ও নতুন উভয় ধরণের ট্রেডারদের জন্য উন্মুক্ত। পারস্পরিক সহায়তা এবং সহনশীলতা অত্যন্ত প্রশংসনীয়। আপনি যদি অন্যদের সাথে আপনার অভিজ্ঞতা শেয়ার করতে চান অথবা ট্রেডিং সম্পর্কে আপনার জ্ঞান বৃদ্ধি করতে চান, তাহলে ট্রেডিং সম্পর্কিত আলোচনা "ফোরাম থ্রেড" এ আপনাকে স্বাগত।

বাংলাদেশ ফরেক্স ফোরাম – ব্রোকার এবং ট্রেডারদের মধ্যে আলোচনা (ব্রোকার সম্পর্কে)
ফরেক্সে সফল হতে চাইলে, যথেষ্ট কৌশলের সাথে একটি ব্রোকারেজ কোম্পানি বাছাই করতে হবে। আপনার ব্রোকার সত্যিই নির্ভরযোগ্য সেটি নির্ধারণ করুন! এভাবে আপনি অনেক ঝুঁকির সম্মুখীন হবেন এবং ফরেক্সে লাভজনক ট্রেড করতে পারবেন। ফোরামে একজন ব্রোকারের রেটিং উপস্থাপন করা হয়; এটি তাদের গ্রাহকদের রেখে যাওয়া মন্তব্য নিয়ে তৈরি করা হয়। আপনি যে ব্রোকার কোম্পানির সাথে কাজ করছেন সে কোম্পানি সম্পর্কে আপনার মতামত দিন, এটি অন্যান্য ট্রেডারদের ভুল সংশোধন করতে সাহায্য করবে এবং একজন ভালো ব্রোকার বাছাই করতে সাহায্য করবে।

অবিচ্ছিন্ন যোগাযোগ বাংলাদেশ ফরেক্স ফোরাম
এই ফোরামে আপনি শুধু ট্রেডিং এর বিষয় সম্পর্কেই কথা বলবেন না, সেইসাথে আপনার পছন্দের যে কোন বিষয় সম্পর্কে কথা বলতে পারবেন। বিশেষ থ্রেডে অফটপিং ও করা যায়! আপনার পছন্দের যে কোন হাস্যরস, দর্শন, সামাজিক সমস্যা বা বাস্তব জ্ঞান সম্পর্কিত কথাবার্তা এখানে উল্লেখ করতে পারবেন, এমনকি আপনি যদি পছন্দ করেন তাহলে ফরেক্স ট্রেডিং সম্পর্কেও লিখতে পারবেন!

যোগদান করার জন্য বোনাস বাংলাদেশ ফরেক্স ফোরামে
যারা ফোরামে লেখা পোষ্ট করবে তারা বোনাস হিসেবে অর্থ পাবে এবং সেই বোনাস একটি অ্যাকাউন্টে ট্রেডিং এর সময় ব্যবহার করতে পারবে. ফোরাম অর্থ মুনাফা লাভ করা নয়, অধিকন্তু, ফোরামে সময় ব্যয় করার জন্য এবং কারেন্সি মার্কেট ও ট্রেডিং সম্পর্কে মতামত শেয়ারের জন্য পুরষ্কার হিসেবে ফোরামিটিস অল্প কিছু বোনাস পায়।