+ প্রসঙ্গে প্রত্যুত্তর
ফলাফল দেখাচ্ছে 1 হইতে 3 সর্বমোট 3

প্রসংগ: যে দেশে প্রেসিডেন্ট নিজে বিটকয়েন চালু করছেন

  1. #1 সঙ্কুচিত পোস্ট
    প্রবীণ সদস্য Tofazzal Mia's Avatar
    নিবন্ধনের তারিখ
    Feb 2018
    মন্তব্য
    600
    অর্জিত পেমেন্টস
    576.76 USD
    ধন্যবাদ
    753
    250 টি পোস্টের জন্য 1,568 বার ধন্যবাদ পেয়েছেন
    সাবস্ক্রাইব করুনসাবস্ক্রাইব করুন
    সাবস্ক্রাইব করা: 0

    যে দেশে প্রেসিডেন্ট নিজে বিটকয়েন চালু করছেন

    Name: prothomalo-bangla_2021-06_0590020c-3aa8-4888-b961-9d9a3b5eaceb_2021_06_06T005926Z_1654258260_RC2.jpg Views: 4 Size: 96.2 কিলোবাইট ID: 14601
    মধ্য আমেরিকার দেশ এল সালভাদরে মানুষ লেনদেন করে মার্কিন ডলারে। বর্তমানে সেটাই সেখানে একমাত্র প্রচলিত মুদ্রা। তবে দ্বিতীয় বৈধ মুদ্রা হিসেবে বিটকয়েন চালুর প্রস্তাব করেছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট। আর তা যদি বাস্তবায়িত হয়, তবে বিশ্বের প্রথম স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে ডিজিটাল মুদ্রা বিটকয়েন চালুর ইতিহাস গড়বে এল সালভাদর। প্রেসিডেন্ট নায়িব বুকেলে ঘোষণাটি দেন ‘বিটকয়েন ২০২১’ সম্মেলনে। ডিজিটাল ওয়ালেট সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান স্ট্রাইকের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হয়ে বিটকয়েনের মাধ্যমে নিজ দেশের আধুনিক আর্থিক অবকাঠামো তৈরি করতে চান তিনি। ধারণকৃত ভিডিওতে প্রেসিডেন্ট বলেন, ‘আগামী সপ্তাহে বিটকয়েনকে বৈধ মুদ্রা হিসেবে প্রচলনের জন্য কংগ্রেসে বিল উত্থাপন করব।’ যুক্তরাষ্ট্রের মিয়ামিতে ৪ ও ৫ জুন সম্মেলনটি অনুষ্ঠিত হয়। বিটকয়েনের সংক্ষিপ্ত ইতিহাসে সেটাই সবচেয়ে বড় সম্মেলন বলা হচ্ছে। একই সম্মেলনে ডিজিটাল মুদ্রা রাখার সেবা স্ট্রাইকের প্রতিষ্ঠাতা জ্যাক মলার্স বলেন, ‘বিটকয়েনের রিজার্ভ উন্নয়নশীল অর্থনীতির দেশগুলোকে মুদ্রাস্ফীতির ধাক্কা সামলানোর একটি পথ করে দেবে।’ এল সালভাদরের বেশির ভাগ মানুষ নগদ অর্থে লেনদেন করে। সেখানে কমবেশি ৭০ শতাংশ মানুষের ব্যাংক অ্যাকাউন্ট বা ক্রেডিট কার্ড নেই। দেশটির জিডিপির ২০ শতাংশ আসে প্রবাসীদের পাঠানো রেমিট্যান্স থেকে। বিদেশ থেকে অর্থ আনতে গিয়েই যার ১০ শতাংশ পর্যন্ত খরচ পড়ে যায়। আর অর্থ হাতে পেতে সেখানে কয়েক দিন পর্যন্ত লেগে যেতে পারে।
    সিএনবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সমস্যা হলো, বিটকয়েনের বিপক্ষে কোনো সম্পদের মজুত না থাকায় তাতে পূর্ণ আস্থা রাখা কঠিন। এর পেছনে কোনো কেন্দ্রীয় নিয়ন্ত্রণব্যবস্থ ও নেই। এর মূল্য ওঠানামায় বড় ভূমিকা রাখে দুষ্প্রাপ্যতা। কারণ সব মিলিয়ে বিটকয়েনের পরিমাণ মোটে ২ কোটি ১০ লাখ।
    এত বড় পরিসরের কাজটি এল সালভাদর কীভাবে করবে, তা নিয়ে বিস্তারিত জানা যায়নি। তবে এই খাতে নেতৃস্থানীয় কয়েকজনকে নিয়ে দল গঠন করে দেশটির নতুন আর্থিক ব্যবস্থা গঠনের পরিকল্পনা বলে জেনেছে সিএনবিসি।
    এল সালভাদরের বিধানসভায় বুকেলের নিউ আইডিয়া পার্টির নিয়ন্ত্রণ আছে। সুতরাং ধরে নেওয়া যায় তাঁর বিলটি পাস হয়ে যাবে।
    বিটকয়েন নিয়ে এল সালভাদরের এটাই প্রথম বড় উদ্যোগ নয়। গত মার্চে সেখানে মুঠোফোন অ্যাপ চালু করে স্ট্রাইক। দ্রুত দেশটির সবচেয়ে বেশি নামানো অ্যাপের তালিকায় উঠে যায় সেটি।

    অর্থ বাজারে ট্রেড করার ক্ষেত্রে উচ্চ ঝুঁকি থাকলেও সঠিক উপায়ে ট্রেড করতে পারলে এখানে অতিরিক্ত উপার্জন করা সম্ভব। ইন্সটাফরেক্স এর মতো নির্ভরযোগ্য ব্রোকার বেছে নেওয়ার মাধ্যমে আপনি আন্তর্জাতিক অর্থ বাজারে প্রবেশ করতে পারবেন এবং আর্থিক স্বাধীনতার দিকে আপনার পথ উন্মুক্ত হবে। আপনি এখানে নিবন্ধন করতে পারেন।


  2. #2 সঙ্কুচিত পোস্ট
    প্রবীণ সদস্য SUROZ Islam's Avatar
    নিবন্ধনের তারিখ
    Jan 2018
    মন্তব্য
    448
    অর্জিত পেমেন্টস
    473.84 USD
    ধন্যবাদ
    717
    201 টি পোস্টের জন্য 1,288 বার ধন্যবাদ পেয়েছেন
    সাবস্ক্রাইব করুনসাবস্ক্রাইব করুন
    সাবস্ক্রাইব করা: 0
    Name: bitcoin-keyboard-reuters-090421-01.jpg Views: 3 Size: 96.2 কিলোবাইট ID: 14633
    বিটকয়েন গ্রহন করার সম্ভাব্য পরিণতি সম্পর্কে আন্তর্জাতিক মূদ্রা তহবিল সতর্ক করার পরও দেশটির আইনপ্রণেতারা এ বিষয়ে আনা বিল ৮৪-৬২ ভোটে পাশ করেছেন। বিটকয়েনের সুবিধা নিয়ে বুকেলে বেশ কিছুদিন ধরেই বলে আসছিলেন। বিশেষ করে, তিনি বলেন, দেশটির প্রবাসী নাগরিকদের জন্য এ পদ্ধতিতে দেশে অর্থ পাঠানো সহজ হবে। দেশে মার্কিন ডলারও বৈধ মুদ্রা হিসেবে চালু থাকবে বলে তিনি নিশ্চয়তা দিয়েছেন।“এর মাধ্যমে আর্থিক অন্তর্ভূক্তিতা আসবে, দেশের জন্য বিনিয়োগ, পর্যটন, উদ্ভাবন, অর্থনৈতিক উন্নয়ন আসবে” - দেশটির কংগ্রেসে বিলটি ভোটে দেওয়ার আগে এ বিষয়ে টুইট করেন বুকেলে। কংগ্রেসে বুকেলের দল এবং এর মিত্ররাই সংঘ্যাগরিষ্ঠ অংশ। তিনি আরও বলেন, বিটকয়েনের ব্যবহার হবে ঐচ্ছিক এবং এর ফলে গ্রাহকের জন্য কোনো ঝুঁকি থাকবে না। ৯০ দিনের মধ্যে এই বিল আইনে পরিণত হবে।যখনই কেউ বিটকয়েন কিনবেন বা বিক্রি করবেন, তাকে ওই সময়ের বাজার দর হিসেবে সঠিক মূল্য পাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করা হবে বলে জানিয়েছেন প্রেসিডেন্ট। মার্কিন ডলারনির্ভর এল সালভাদরের অর্থনীতি অনেকটাই প্রবাসীদের পাঠানো রেমিটেন্সের ওপর নির্ভর করে। প্রবাসীদের পাঠানো বছরে গড়ে ছয়শ' কোটি ডলার দেশটির জিডিপি'র প্রায় এক পঞ্চমাংশের যোগান দেয়, অনুপাত হিসেবে যা বিশ্বে অন্যতম সর্বোচ্চ। অভিজ্ঞরা বলছেন, দেশটি যখন আন্তর্জাতিক মূদ্রা তহবিলের কাছে এক বিলিয়ন ডলারের প্রকল্প চাইছে, তখন এই সিদ্ধান্ত ওই প্রক্রিয়াকে জটিল করে তুলতে পারে।

    অর্থ বাজারে ট্রেড করার ক্ষেত্রে উচ্চ ঝুঁকি থাকলেও সঠিক উপায়ে ট্রেড করতে পারলে এখানে অতিরিক্ত উপার্জন করা সম্ভব। ইন্সটাফরেক্স এর মতো নির্ভরযোগ্য ব্রোকার বেছে নেওয়ার মাধ্যমে আপনি আন্তর্জাতিক অর্থ বাজারে প্রবেশ করতে পারবেন এবং আর্থিক স্বাধীনতার দিকে আপনার পথ উন্মুক্ত হবে। আপনি এখানে নিবন্ধন করতে পারেন।


  3. নিম্নলিখিত 4 সদস্য দরকারী পোস্টের জন্য SUROZ Islam কে ধন্যবাদ জানিয়েছেন:

    BDFOREX TRADER (2021-06-10),DhakaFX (2021-06-10),FXBD (2021-06-10),Rassel Vuiya (2021-06-10)

  4. #3 সঙ্কুচিত পোস্ট
    প্রবীণ সদস্য Rassel Vuiya's Avatar
    নিবন্ধনের তারিখ
    Feb 2018
    মন্তব্য
    431
    অর্জিত পেমেন্টস
    460.72 USD
    ধন্যবাদ
    812
    228 টি পোস্টের জন্য 1,490 বার ধন্যবাদ পেয়েছেন
    সাবস্ক্রাইব করুনসাবস্ক্রাইব করুন
    সাবস্ক্রাইব করা: 0
    এল সালভাদরে ৭ সেপ্টেম্বর চালু হচ্ছে বিটকয়েন লেনদেন। প্রেসিডেন্ট নাইব বুকেলে ঘোষণা করেছেন, সম্প্রতি পাস হওয়া বিটকয়েন আইন ৭ সেপ্টেম্বর থেকে কার্যকর হবে। তিনি উল্লেখ করেছেন, এর ব্যবহার হবে ঐচ্ছিক। এরই মধ্যে দেশটির কংগ্রেস বুকেলের ক্রিপ্টোকারেন্সি ে বৈধ মুদ্রা হিসেবে গ্রহন করার বিল অনুমোদন করেছে। এর ফলে, এল সালভাদর বিশ্বের প্রথম দেশ হিসেবে বিটকয়েনকে আইনসম্মত মুদ্রা হিসেবে গ্রহণ করছে।

    "বিটকয়েনের ব্যবহার ঐচ্ছিক হবে, কেউ বিটকয়েন না চাইলে পাবে না ... যদি কেউ বিটকয়েনে অর্থ প্রদান করে তবে তারা স্বয়ংক্রিয়ভাবে ডলারে এটি পেতে পারে," বুকেলে বলেন বলে জানিয়েছে রয়টার্স। বুকেলে যোগ করেন, বেতন ও পেনশন মার্কিন ডলারে প্রদান করা অব্যাহত থাকবে। 'এথেনা বিটকয়েন' নামের প্রতিষ্ঠানটি বলেছে, তারা এল সালভাদরে প্রায় দেড় হাজার ক্রিপ্টোকারেন্সি এটিএম ইনস্টল করার জন্য এক মিলিয়ন ডলারেরও বেশি বিনিয়োগের পরিকল্পনা করেছে, বিশেষ করে যেখানে বাসিন্দারা বিদেশ থেকে রেমিটেন্স পান। এথেনা বিটকয়েনের ওয়েবসাইট অনুসারে, এটিএমগুলি বিটকয়েন কিনতে বা নগদে বিক্রি করতে ব্যবহার করা যাবে।
    বুকেল বলেন, "বিটকয়েন আইন পাস করার অন্যতম কারণ হচ্ছে যারা রেমিটেন্স প্রেরণ করে তাদের সাহায্য করা," তিনি বলেন, ঐতিহ্যগতভাবে দেশে অর্থ পাঠানোর উচ্চ কমিশন ক্রিপ্টোকারেন্সি ব্যবহার করে দূর করা হবে। দেশটির অর্থনীতি প্রবাসীদের পাঠানো রেমিটেন্সের ওপর নির্ভরশীল। এল সালভাদরের জিডিপি'র শতকরা ২০ ভাগ আসে দেশটির ২০ লাখের বেশি প্রবাসীর পাঠানো বার্ষিক প্রায় চারশ' কোটি ডলার থেকে। 'অটোনোমাস রিসার্চে'র মার্কিন পেমেন্ট এবং ফিনটেক বিশ্লেষক কেনেথ সুকোস্কির মতে, বিশ্বব্যাপী আন্তঃসীমান্ত রেমিটেন্সের শতকরা এক ভাগেরও কম বর্তমানে ক্রিপ্টোকারেন্সি ে রয়েছে। কিন্তু ভবিষ্যতে এটি বছরে ৫০০ বিলিয়ন ডলারের বাজারে পারিণত হবে বলে অনুমান রয়েছে।

    অর্থ বাজারে ট্রেড করার ক্ষেত্রে উচ্চ ঝুঁকি থাকলেও সঠিক উপায়ে ট্রেড করতে পারলে এখানে অতিরিক্ত উপার্জন করা সম্ভব। ইন্সটাফরেক্স এর মতো নির্ভরযোগ্য ব্রোকার বেছে নেওয়ার মাধ্যমে আপনি আন্তর্জাতিক অর্থ বাজারে প্রবেশ করতে পারবেন এবং আর্থিক স্বাধীনতার দিকে আপনার পথ উন্মুক্ত হবে। আপনি এখানে নিবন্ধন করতে পারেন।


+ প্রসঙ্গে প্রত্যুত্তর

মন্তব্য নিয়মাবলি

  • আপনি হয়ত নতুন পোস্ট করতে পারবেন না
  • আপনি হয়ত মন্তব্য লিখতে পারবেন না
  • আপনি হয়ত সংযুক্তি সংযুক্ত করতে পারবেন না
  • আপনি হয়ত আপনার মন্তব্য পরিবর্তনপারবেন না
  • BB কোড হলো উপর
  • Smilies are উপর
  • [IMG] কোড হয় উপর
  • এইচটিএমএল কোড হল বন্ধ
বাংলাদেশ ফরেক্স ফোরাম – উপস্থাপন
ফোরাম সেবায় আপনাকে স্বাগতম যেটি ভার্চুয়াল স্যালুন হিসেবে সকল স্তরের ট্রেডারদের সাথে যোগাযোগ করার সুযোগ প্রদান করছে। ফরেক্স হলো একটি গতিশীল আর্থিক বাজার যেটি দিনে ২৪ঘন্টা খোলা থাকে। যে কেউ ব্রোকারেজ কোম্পানির মাধ্যমে এখানে কার্যক্রম সম্পাদন করতে পারে। এই ফোরামে আপনি কারেন্সি মার্কেটে ট্রেডিং এবং মেটাট্রেডার ফোর ও মেটাট্রেডার ফাইভের মাধ্যমে অনলাইন ট্রেডিং সম্পর্কিত বিস্তারিত বিবরণ পাবেন।

বাংলাদেশ ফরেক্স ফোরাম – ট্রেডিং আলোচনা
ফোরামের প্রত্যেক সদস্য বিভিন্ন আলোচনায় অংশগ্রহণ করতে পারেন, যার মধ্যে ফরেক্স সম্পর্কিত ও ফরেক্সের বাইরের বিভিন্ন বিষয়ও রয়েছে। ফোরাম বিভিন্ন মতামত এবং প্রয়োজনীয় তথ্য শেয়ারের জন্য ডিজাইন করা হয়েছে এবং এটি অভিজ্ঞ ও নতুন উভয় ধরণের ট্রেডারদের জন্য উন্মুক্ত। পারস্পরিক সহায়তা এবং সহনশীলতা অত্যন্ত প্রশংসনীয়। আপনি যদি অন্যদের সাথে আপনার অভিজ্ঞতা শেয়ার করতে চান অথবা ট্রেডিং সম্পর্কে আপনার জ্ঞান বৃদ্ধি করতে চান, তাহলে ট্রেডিং সম্পর্কিত আলোচনা "ফোরাম থ্রেড" এ আপনাকে স্বাগত।

বাংলাদেশ ফরেক্স ফোরাম – ব্রোকার এবং ট্রেডারদের মধ্যে আলোচনা (ব্রোকার সম্পর্কে)
ফরেক্সে সফল হতে চাইলে, যথেষ্ট কৌশলের সাথে একটি ব্রোকারেজ কোম্পানি বাছাই করতে হবে। আপনার ব্রোকার সত্যিই নির্ভরযোগ্য সেটি নির্ধারণ করুন! এভাবে আপনি অনেক ঝুঁকির সম্মুখীন হবেন এবং ফরেক্সে লাভজনক ট্রেড করতে পারবেন। ফোরামে একজন ব্রোকারের রেটিং উপস্থাপন করা হয়; এটি তাদের গ্রাহকদের রেখে যাওয়া মন্তব্য নিয়ে তৈরি করা হয়। আপনি যে ব্রোকার কোম্পানির সাথে কাজ করছেন সে কোম্পানি সম্পর্কে আপনার মতামত দিন, এটি অন্যান্য ট্রেডারদের ভুল সংশোধন করতে সাহায্য করবে এবং একজন ভালো ব্রোকার বাছাই করতে সাহায্য করবে।

অবিচ্ছিন্ন যোগাযোগ বাংলাদেশ ফরেক্স ফোরাম
এই ফোরামে আপনি শুধু ট্রেডিং এর বিষয় সম্পর্কেই কথা বলবেন না, সেইসাথে আপনার পছন্দের যে কোন বিষয় সম্পর্কে কথা বলতে পারবেন। বিশেষ থ্রেডে অফটপিং ও করা যায়! আপনার পছন্দের যে কোন হাস্যরস, দর্শন, সামাজিক সমস্যা বা বাস্তব জ্ঞান সম্পর্কিত কথাবার্তা এখানে উল্লেখ করতে পারবেন, এমনকি আপনি যদি পছন্দ করেন তাহলে ফরেক্স ট্রেডিং সম্পর্কেও লিখতে পারবেন!

যোগদান করার জন্য বোনাস বাংলাদেশ ফরেক্স ফোরামে
যারা ফোরামে লেখা পোষ্ট করবে তারা বোনাস হিসেবে অর্থ পাবে এবং সেই বোনাস একটি অ্যাকাউন্টে ট্রেডিং এর সময় ব্যবহার করতে পারবে. ফোরাম অর্থ মুনাফা লাভ করা নয়, অধিকন্তু, ফোরামে সময় ব্যয় করার জন্য এবং কারেন্সি মার্কেট ও ট্রেডিং সম্পর্কে মতামত শেয়ারের জন্য পুরষ্কার হিসেবে ফোরামিটিস অল্প কিছু বোনাস পায়।