আয় করুন
$50000
বন্ধুদের আমন্ত্রণ করার জন্য
ইন্সটাফরেক্স থেকে স্টার্টআপ
বোনাস নিন
কোন বিনিয়োগের প্রয়োজন নেই!
কোনো বিনিয়োগ এবং ঝুঁকি
ছাড়াই ট্রেডিং শুরু করতে
গ্রহণ করুন নতুন স্টার্টআপ
বোনাস $1000
বোনাস নিন
৫৫%
ইন্সটাফরেক্স থেকে
প্রতিবার অর্থ জমাদানে
+ প্রসঙ্গে প্রত্যুত্তর
ফলাফল দেখাচ্ছে 1 হইতে 1 সর্বমোট 1

প্রসংগ: ক্রিপ্টোকারেন্সি বন্ধে কঠোর হচ্ছে চীন!

  1. #1 সঙ্কুচিত পোস্ট
    প্রবীণ সদস্য Tofazzal Mia's Avatar
    নিবন্ধনের তারিখ
    Feb 2018
    মন্তব্য
    581
    অর্জিত পেমেন্টস
    524.61 USD
    ধন্যবাদ
    725
    241 টি পোস্টের জন্য 1,496 বার ধন্যবাদ পেয়েছেন
    সাবস্ক্রাইব করুনসাবস্ক্রাইব করুন
    সাবস্ক্রাইব করা: 0

    ক্রিপ্টোকারেন্সি বন্ধে কঠোর হচ্ছে চীন!

    ক্রিপ্টোকারেন্সি বিরুদ্ধে কঠোর হচ্ছে চীন সরকার। এ ধরনের ডিজিটাল অর্থ লেনদেনকে সমর্থন না করতে দেশটির ব্যাংক ও অর্থ লেনদেন প্লাটফর্মগুলোকে অনুরোধ করা হয়েছে। এর আগে গত শুক্রবার থেকে সিচুয়ান প্রদেশে বিটকয়েনের কার্যক্রম বন্ধ করতে নির্দেশ দেয়া হয়। খবর বিবিসি।গতকাল পর্যন্ত এশিয়ান ট্রেডিংয়ে বিটকয়েনের দাম প্রায় ১০ শতাংশ কমে যায়। গত এপ্রিলে সর্বোচ্চে উঠেছিল বিটকয়েনের মান। সে হিসাবে এখন তা প্রায় ৫০ শতাংশ কমেছে। চীনের কেন্দ্রীয় ব্যাংক দ্য পিপলস ব্যাংক অব চায়না (পিবিওসি) জানিয়েছে, সম্প্রতি তারা বেশকিছু উল্লেখযোগ্য ব্যাংক ও অর্থ প্রদানকারী প্রতিষ্ঠানকে তলব করেছিল। সেখানে ক্রিপ্টোকারেন্সি ব্যবসার সঙ্গে জড়িত থাকলে কঠোর ব্যবস্থা নেয়ার কথা বলা হয়েছে।ব্যাংকগুলো ে কড়া ভাষায় সতর্ক করা হয়েছে, যেন তারা ক্রিপ্টোকারেন্সি লেনদেন, বাণিজ্য বা নিষ্পত্তির মতো কাজে না জড়ায়।সম্পদের দিক থেকে চীনের তৃতীয় বৃহত্তম ঋণদানকারী সংস্থা দি এগ্রিকালচারাল ব্যাংক অব চায়না জানিয়েছে, তারা পিবিওসির দেয়া নির্দেশনা অনুসরণ করছে। ক্রিপ্টোকারেন্সি সঙ্গে জড়িত অবৈধ সব কার্যক্রম ও লেনদেন নির্মূল করতে গ্রাহকদের জন্য যথাযথ পরিশ্রম করবে তারা। চীনের পোস্টাল সেভিংস ব্যাংক জানিয়েছে, ক্রিপ্টোকারেন্সি িষয়ক আর কোনো লেনদেনের সঙ্গে তারা জড়িত হবে না।আর্থিক প্রযুক্তি জায়ান্ট অ্যান্ট গ্রুপের মালিকানাধীন দেশটির মোবাইল ও অনলাইন পেমেন্ট প্লাটফর্ম আলিপে জানিয়েছে, বেআইনি ক্রিপ্টোকারেন্সি লেনদেন শনাক্ত করতে তারা একটি কঠোর তদারকি ব্যবস্থা তৈরি করবে।মূলত সিচুয়ান প্রদেশে বিটকয়েনের কার্যক্রম বন্ধ করে দেয়ার পরই কঠোর ঘোষণা দেয় চীনের কেন্দ্রীয় ব্যাংক। কেমব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি গবেষণা বলছে, বিশ্বের ৬৫ শতাংশ বিটকয়েন উৎপাদন হয় চীনে। দ্বিতীয় বৃহত্তম উৎপাদক হিসেবে উঠে এসেছে সিচুয়ান প্রদেশের নাম।গত মাসে চীনের মন্ত্রিসভা ও স্টেট কাউন্সিল জানায়, আর্থিক ঝুঁকি নিয়ন্ত্রণে আনতে ক্রিপ্টোকারেন্সি বাণিজ্যের ওপর নিয়ন্ত্রণ আনা হবে। বিশ্বজুড়ে ক্রিপ্টোকারেন্সি বিষয়ে কঠোর নীতিমালা নেয়ায় বিনিয়োগকারীরা বেশ দুশ্চিন্তায় পড়ে গেছেন। ফলে পড়তে শুরু করেছে এর মান।তবে এখনো অনেকে ক্রিপ্টোকারেন্সি ব্যবসা করে যাচ্ছেন। নিলাম সংস্থা সোথবি জানিয়েছে, আগামী মাসেই বিরল একটি নাশপাতি আকৃতির হীরা নিলামে তোলা হবে। সেটি কেনার জন্য ব্যবহার করা হবে ক্রিপ্টোকারেন্সি প্রথমবারের মতো এত দামি একটি হীরা ক্রিপ্টোকারেন্সি মাধ্যমে নিলামে তোলা হচ্ছে। ফলে বিষয়টি নিয়ে বেশ আগ্রহ তৈরি হয়েছে সবার মাঝে।ক্রিপ্টোকার ন্সি এক ধরনের সাংকেতিক মুদ্রা, যেটি কেবল অনলাইনে বিদ্যমান। বাস্তবে এ মুদ্রা ধরে দেখা যায় না। পুরো লেনদেনটিই হয় অনলাইননির্ভর। পিয়ার টু পিয়ার পদ্ধতিতে এ লেনদেন সরাসরি প্রাপক থেকে প্রেরকের কাছে যায়। ফলে তৃতীয় কোনো পক্ষের এতে সংশ্লিষ্টতা থাকে না। অন্য কেউ জানতেও পারে না লেনদেনের বিষয়ে। এ কারণেই ক্রিপ্টোকারেন্সি নিয়ে শঙ্কায় রয়েছে বিশ্বের বিভিন্ন রাষ্ট্র।এ প্রেক্ষাপটে এক বিবৃতি দিয়েছে চীনের তিন শিল্প কর্তৃপক্ষ। সেখানে বলা হয়েছে, ভার্চুয়াল কারেন্সি প্রকৃত মূল্যমান দ্বারা সমর্থিত নয় এবং এর বাণিজ্য চুক্তি চীনের আইন দ্বারা সুরক্ষিত নয়।
    Last edited by Tofazzal Mia; গতকাল at 03:37 PM.

+ প্রসঙ্গে প্রত্যুত্তর

মন্তব্য নিয়মাবলি

  • আপনি হয়ত নতুন পোস্ট করতে পারবেন না
  • আপনি হয়ত মন্তব্য লিখতে পারবেন না
  • আপনি হয়ত সংযুক্তি সংযুক্ত করতে পারবেন না
  • আপনি হয়ত আপনার মন্তব্য পরিবর্তনপারবেন না
  • BB কোড হলো উপর
  • Smilies are উপর
  • [IMG] কোড হয় উপর
  • এইচটিএমএল কোড হল বন্ধ
বাংলাদেশ ফরেক্স ফোরাম – উপস্থাপন
ফোরাম সেবায় আপনাকে স্বাগতম যেটি ভার্চুয়াল স্যালুন হিসেবে সকল স্তরের ট্রেডারদের সাথে যোগাযোগ করার সুযোগ প্রদান করছে। ফরেক্স হলো একটি গতিশীল আর্থিক বাজার যেটি দিনে ২৪ঘন্টা খোলা থাকে। যে কেউ ব্রোকারেজ কোম্পানির মাধ্যমে এখানে কার্যক্রম সম্পাদন করতে পারে। এই ফোরামে আপনি কারেন্সি মার্কেটে ট্রেডিং এবং মেটাট্রেডার ফোর ও মেটাট্রেডার ফাইভের মাধ্যমে অনলাইন ট্রেডিং সম্পর্কিত বিস্তারিত বিবরণ পাবেন।

বাংলাদেশ ফরেক্স ফোরাম – ট্রেডিং আলোচনা
ফোরামের প্রত্যেক সদস্য বিভিন্ন আলোচনায় অংশগ্রহণ করতে পারেন, যার মধ্যে ফরেক্স সম্পর্কিত ও ফরেক্সের বাইরের বিভিন্ন বিষয়ও রয়েছে। ফোরাম বিভিন্ন মতামত এবং প্রয়োজনীয় তথ্য শেয়ারের জন্য ডিজাইন করা হয়েছে এবং এটি অভিজ্ঞ ও নতুন উভয় ধরণের ট্রেডারদের জন্য উন্মুক্ত। পারস্পরিক সহায়তা এবং সহনশীলতা অত্যন্ত প্রশংসনীয়। আপনি যদি অন্যদের সাথে আপনার অভিজ্ঞতা শেয়ার করতে চান অথবা ট্রেডিং সম্পর্কে আপনার জ্ঞান বৃদ্ধি করতে চান, তাহলে ট্রেডিং সম্পর্কিত আলোচনা "ফোরাম থ্রেড" এ আপনাকে স্বাগত।

বাংলাদেশ ফরেক্স ফোরাম – ব্রোকার এবং ট্রেডারদের মধ্যে আলোচনা (ব্রোকার সম্পর্কে)
ফরেক্সে সফল হতে চাইলে, যথেষ্ট কৌশলের সাথে একটি ব্রোকারেজ কোম্পানি বাছাই করতে হবে। আপনার ব্রোকার সত্যিই নির্ভরযোগ্য সেটি নির্ধারণ করুন! এভাবে আপনি অনেক ঝুঁকির সম্মুখীন হবেন এবং ফরেক্সে লাভজনক ট্রেড করতে পারবেন। ফোরামে একজন ব্রোকারের রেটিং উপস্থাপন করা হয়; এটি তাদের গ্রাহকদের রেখে যাওয়া মন্তব্য নিয়ে তৈরি করা হয়। আপনি যে ব্রোকার কোম্পানির সাথে কাজ করছেন সে কোম্পানি সম্পর্কে আপনার মতামত দিন, এটি অন্যান্য ট্রেডারদের ভুল সংশোধন করতে সাহায্য করবে এবং একজন ভালো ব্রোকার বাছাই করতে সাহায্য করবে।

অবিচ্ছিন্ন যোগাযোগ বাংলাদেশ ফরেক্স ফোরাম
এই ফোরামে আপনি শুধু ট্রেডিং এর বিষয় সম্পর্কেই কথা বলবেন না, সেইসাথে আপনার পছন্দের যে কোন বিষয় সম্পর্কে কথা বলতে পারবেন। বিশেষ থ্রেডে অফটপিং ও করা যায়! আপনার পছন্দের যে কোন হাস্যরস, দর্শন, সামাজিক সমস্যা বা বাস্তব জ্ঞান সম্পর্কিত কথাবার্তা এখানে উল্লেখ করতে পারবেন, এমনকি আপনি যদি পছন্দ করেন তাহলে ফরেক্স ট্রেডিং সম্পর্কেও লিখতে পারবেন!

যোগদান করার জন্য বোনাস বাংলাদেশ ফরেক্স ফোরামে
যারা ফোরামে লেখা পোষ্ট করবে তারা বোনাস হিসেবে অর্থ পাবে এবং সেই বোনাস একটি অ্যাকাউন্টে ট্রেডিং এর সময় ব্যবহার করতে পারবে. ফোরাম অর্থ মুনাফা লাভ করা নয়, অধিকন্তু, ফোরামে সময় ব্যয় করার জন্য এবং কারেন্সি মার্কেট ও ট্রেডিং সম্পর্কে মতামত শেয়ারের জন্য পুরষ্কার হিসেবে ফোরামিটিস অল্প কিছু বোনাস পায়।