পরিবেশবান্ধব গাড়ি উন্মোচনের ১৪ বছরে হুন্দাই ও কিয়া ব্র্যান্ডের মোট ৩০ লাখ ৬ হাজার ৪১৪ ইউনিট গাড়ি বিক্রি হয়েছে। এ সংখ্যা হুন্দাই গ্রুপের মোট গাড়ি বিক্রির ৩ দশমিক ২ শতাংশ। পরিবেশবান্ধব গাড়ির মধ্যে রয়েছে হাইব্রিড, বিদ্যুচ্চালিত ও ফুয়েল-সেল যানবাহন। ২০০৯ সালে পরিবেশবান্ধব গাড়ির যাত্রা করেছিল হুন্দাই ও কিয়া। সে সময় ব্র্যান্ড দুটি যথাক্রমে সোনাটা হাইব্রিড ও কেফাইভ হাইব্রিড গাড়ি উন্মোচন করেছিল। ২০১৬ সাল পর্যন্ত পরিবেশবান্ধব গাড়িগুলো সংস্থাটির মোট বিক্রীত গাড়ির ১ শতাংশেরও কম ছিল। তবে এর পর থেকে হুন্দাই মোটর গ্রুপের বহরে এসব গাড়ির হিস্যা বাড়ছে। চলমান চিপ ঘাটতি এবং ইউক্রেন-রাশিয়া যুদ্ধের কারণে মোট গাড়ি বিক্রি পতন হলেও পরিবেশবান্ধব গাড়ি বিক্রি ঊর্ধ্বমুখী রয়েছে। চলতি বছরের প্রথম পাঁচ মাসে হুন্দাই ও কিয়া ৩ লাখ ৯৩ হাজার ৫০৯ ইউনিট পরিবেশবান্ধব গাড়ি বিক্রি করেছে। এ সংখ্যা গত বছরের একই সময়ের তুলনায় ৪২ দশমিক ৬ শতাংশ বেশি। এ সময়ে গ্রুপটির সামগ্রিক গাড়ি বিক্রি ৫ দশমিক ৯ শতাংশ কমে ২৬ লাখ ইউনিটে পৌঁছেছে এবং বিদ্যুচ্চালিত গাড়ির বিক্রি বেড়েছে ৭৬ শতাংশ। পাশাপাশি হাইব্রিড গাড়ি বিক্রি বেড়েছে ৩১ শতাংশ। গত ১৪ বছরে সবচেয়ে জনপ্রিয় পরিবেশবান্ধব গাড়ি হিসেবে জায়গা করে নিয়েছে হাইব্রিড। মোট গাড়ি বিক্রিতে এ মডেলের হিস্যা ৬২ দশমিক ৪ শতাংশ। যেখানে ইভি ও প্লাগ-ইন হাইব্রিডের হিস্যা যথাক্রমে ২৬ দশমিক ২ ও ১০ দশমিক ৫ শতাংশ। গ্রুপটির সবচেয়ে বেশি বিক্রীত মডেল ছিল কিয়া নিরো হাইব্রিড। এ সময়ে মডেলটির বিক্রি ৪ লাখ ৮০ হাজার ৪৭১ ইউনিট দাঁড়িয়েছে। এর পরে ২ লাখ ৮৪ হাজার ৬৩১ ইউনিট হুন্দাই সোনাটা হাইব্রিড এবং ২ লাখ ৪০ হাজার ৮৭৬ ইউনিট আইওনিক হাইব্রিড বিক্রি হয়েছে।