জাপানের গাড়ি নির্মাণকারী প্রতিষ্ঠান হোন্ডা তাদের নির্ভরযোগ্য ভিটেক ও আই-ভিটেক ইঞ্জিনের জন্য বিখ্যাত। হোন্ডা বাংলাদেশে বেশ কয়েক বছর ধরে আনুষ্ঠানিকভাবেই তাদের ব্যবসায়ীক কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে এবং সিভিক, অ্যাকর্ড, সিআর-ভি এবং এইচআর-ভি'র মতো বেশ কিছু জনপ্রিয় গাড়ি লঞ্চ করেছে। যেগুলো দেশের বাজারে বেশ দ্রুত জনপ্রিয়তাও পেয়েছে। গত বছর হোন্ডা তাদের বিআর-ভি দ্বিতীয় প্রজন্মের মডেলটি ইন্দোনেশিয়ার বাজারে এবং বছরের শেষ দিকে থাইল্যান্ডের বাজারে ছেড়েছে। বিআর-ভি মডেলটি ইন্দোনেশিয়ার বাজারে ৩টি গ্রেডে ছাড়া হয়েছে। সেগুলোর মধ্যে আছে, 'এস', 'ই' ও 'এবং' প্রেস্টিজ। যার মধ্যে প্রেস্টিজে সর্বোচ্চ গ্রেড এবং একমাত্র গ্রেড যেখানে সেন্সিংয়ের অপশন রয়েছে। হোন্ডা সেন্সিং হচ্ছে লেনওয়াচসহ একটি সক্রিয় নিরাপত্তা ব্যবস্থা। থাইল্যান্ডের বাজারের জন্য তারা ২টি গ্রেড 'ই' এবং 'ইএল' ছেড়েছে। দুটো গ্রেডেই হোন্ডা সেন্সিং ফিচারটি রয়েছে।